Indian News

তিন হাসপাতাল ঘুরে অবশেষে ভর্তি রোগী

Source: , Posted On:   28 January 2021

এই সময়: ফের এক রোগীকে ভর্তি না-নেওয়ার অভিযোগ উঠল শহরের তিনটি সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে। রোগীর পরিবারের লোকেরা জানাচ্ছেন, তিনটি হাসপাতালই বেড নেই বলে তাঁদের ফিরিয়ে দেয়। সঙ্কটজনক ওই রোগীকে নিয়ে সারা রাত তাঁদের হাসপাতালের বাইরে বসে থাকতে হয়েছে। তবু রোগীকে ভর্তি করানো যায়নি। এর মধ্যে কেটে যায় ২৬ ঘণ্টা। রোগীর অবস্থার আরও অবনতি হতে থাকে। পরে বিষয়টি এসএসকেএম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের গোচরে আসে। বুধবার সকালে তড়িঘড়ি ওই রোগীকে ভর্তি করা হয় এসএসকেএমে।

গত ২২ জানুয়ারি পথদুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন শিলিগুড়ির বাসিন্দা রতনশীল চন্দ্র। পায়ে গুরুতর আঘাত নিয়ে তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু সেখানে যথাযথ চিকিৎসা মেলেনি বলে অভিযোগ। আহত রতনকে রেফার করা হয় কলকাতার এসএসকেএমে। মঙ্গলবার তাঁকে নিয়ে সেখানে চলে আসেন পরিবারের লোকেরা। কিন্তু এসএসকেএমে তাঁকে ভর্তি নেওয়া হয়নি বলে পরিবারের দাবি। রোগীকে নিয়ে শুরু হয় টানাপড়েন। এসএসকেএমে ভর্তি করতে না-পেরে রতনের পরিবার তাঁকে নিয়ে যান আরজি কর হাসপাতালে। কিন্তু সেখানেও ভর্তি নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ। আরজি কর থেকে রতনকে নিয়ে যাওয়া হয় এনআরএস হাসপাতালে। সেখান থেকেও রোগীকে ফিরিয়ে দেওয়া হয় বলে পরিবার জানায়। এর পর ফের রোগীকে নিয়ে তাঁরা এসএসকেএমে চলে আসেন।
প্রত্যেকে স্বাস্থ্যসাথীর আওতায় এলে খুশি হব: মমতা
রতনের এক আত্মীয় জানালেন, 'আরও দু'টি হাসপাতাল ঘুরে আবার এসএসকেএমে আসি। চিকিৎসক-কর্মীদের বারবার অনুরোধ করি। কিন্তু কোনও কাজ হয়নি। এই ঠান্ডায় সারা রাত আমরা হাসপাতালের বাইরে বসেছিলাম।' তবে এসএসকেএমের এক কর্তা বলছেন, 'আমাদের গোচরে আসা মাত্রই আমরা রোগীকে ভর্তির ব্যবস্থা করেছি। তাঁর যথাসাধ্য চিকিৎসা করা হবে।' স্বাস্থ্যভবন সূত্রে দাবি, ওই রোগীর পরিজনকে যে তিনটি হাসপাতালে ঘুরতে হয়েছে, এমন কোনও লিখিত অভিযোগ তাদের কাছে আসেনি। এলে তা খতিয়ে দেখা হবে।